মেয়েকে নিয়ে ‘অ্যা হিরো’র প্রিমিয়ারে আসগর ফারহাদি

Www.munshiganjcrime.com
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আলমগীর কবির
কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭৪তম আসরে ‘অ্যা হিরো’র প্রিমিয়ারের আগে মেয়েকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ইরানি পরিচালক আসগর ফারহাদি। বুধবার পালে দে ফেস্টিভাল ভবনে এসময় তাদের সাথে উপস্থিত ছিলেন ছবির কয়েকজন কলাকুশলী।

মঞ্চে আসগরের দুই পাশে ছিলেন অভিনেতা আমির জাদিদি ও প্রযোজক আলেকজ্যঁন্দ মালে-গি। মেয়ে সারিনা ফারহাদি ছিলেন মঞ্চের প্রথম চেয়ারে। সাধারণত মঞ্চে ১০ জন পর্যন্ত বসতে পারেন। এরপরও যদি কোনো ছবির কলাকুশলী থাকেন তাহলে তাদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয় সামনের সারির কয়েকটি আসন।

কিন্তু ‘অ্যা হিরো’র মাত্র তিনজন মঞ্চে বসলেন। আসগর ফারহাদি চাইলেই সারিনাকে পাশে বসাতে পারতেন। কিন্তু নিজের মেয়ে বলে এই সুবিধা তাকে দিতে চাননি তিনি। বাকি কলাকুশলী সবার জায়গা মঞ্চে হবে না বলেই হয়তো।

অস্কারজয়ী ‘অ্যা সেপারেশন’-এর (২০১০) পর আবার নিজের ছবিতে মেয়েকে দিয়ে অভিনয় করিয়েছেন আসগর ফারহাদি। ১১ বছর পর বাবার পরিচালনায় সারিনা ফারহাদির অভিনয় ‘অ্যা হিরো’র অন্যতম চমক। ইরানের দক্ষিণে দেশটির সংস্কৃতি ও শিল্পকর্মের প্রাণকেন্দ্র পার্সিয়ার প্রাচীন রাজধানী সিরাজে মহামারির মধ্যে এর চিত্রায়ন হয়েছে।

২০০২ সালে মা পারিসা বখতাভারের পরিচালনায় ‘পশতে কনকুরিহা’ টিভি সিরিজে প্রথমবার অভিনয় করেন সারিনা ফারহাদি। ২০০৮ সালে মায়ের হাত ধরেই ‘টেম্বুরিন’ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তার। এরপর বাবার পরিচালনায় প্রথম কাজ করেন ‘অ্যা সেপারেশন’ ছবিতে। এতে প্রধান দুই চরিত্র সিমিন ও নাদেরের কিশোরী মেয়ের ভূমিকায় দারুণ অভিনয়ের জন্য বার্লিন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা অভিনেত্রী এবং পাম স্প্রিংস আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ফিপরেসি পুরস্কার পান তিনি।

‘অ্যা হিরো’তে সারিনা ফারহাদি আছেন নাজনীন চরিত্রে। ‘অ্যা হিরো’র মূল চরিত্র রহিমের (আমির জাদিদি) প্রেমিকা সে। স্ত্রীর কাছ থেকে বিচ্ছেদ হওয়া এক ছেলের বাবা রহিম। বোনের পরিবারের সঙ্গে থাকে। দেনা শোধ করতে না পারায় জেল খাটছে রহিম। সে যাকে ভালোবাসে, তার প্রতি মেয়েটির আস্থা আছে। ঘটনাক্রমে মেয়েটি সোনার কয়েন ও টাকাভর্তি একটি ব্যাগ পায়। রহিম প্যারোলে ছাড়া পাওয়ার পর সেসব তাকে তাকে দিয়ে ঋণ পরিশোধের জন্য বলে। কিন্তু দেনা শোধের জন্য এই অর্থ যথেষ্ট নয়। এরপর ব্যাগটি তার মালিকের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় রহিম। কিন্তু সততা দেখাতে গিয়ে প্রশাসনের জটিলতায় আটকে যেতে থাকে সে।

কান উৎসবের ৭৪তম আসরে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে স্বর্ণ পামের দৌড়ে থাকা ‘অ্যা হিরো’র ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়েছে বুধবার। গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে এই প্রদর্শনী শুরুর আগে দর্শক ও আমন্ত্রিত অতিথিরা কয়েক মিনিট দাঁড়িয়ে অভিবাদন জানান আসগর ফারহাদিকে। এটি একই প্রেক্ষাগৃহে বৃহস্পতিবার সকালে আবার দেখিয়েছে আয়োজকরা।

সারিনা ফারহাদি
আসগর ফারহাদি এবারের ছবিতে ইরানের জটিল প্রশাসনিক ব্যবস্থাকে তুলে ধরেছেন। এর ফ্রেমে ফ্রেমে ফাটল ধরা ইরানি সমাজের বাস্তব প্রতিচ্ছবি উদ্ঘাটিত হয়েছে। বর্তমান সময়ে দৈনন্দিন জীবনযাপনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের নেতিবাচক ভূমিকাও উঠে এসেছে।

স্প্যানিশ ভাষায় প্রথমবার কাজ করার তিন বছর পর ইরানি সমাজকে আবার নিজের মতো করে দেখেছেন আসগর ফারহাদি। ৪৯ বছর বয়সী এই নির্মাতা এবার বলেছেন নীতি ও সততার গল্প।

Share

Www.munshiganjcrime.com
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •